এশিয়ার প্রাচীনতম বাংলা সংবাদপত্র প্রথম প্রকাশ ১৯৩০

প্রিন্ট রেজি নং- চ ৩২

১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গোয়াইনঘাট তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ, নিহত ১,আহত ৭ আটক ৪

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ০৭ জুলাই, রবিবার, ২০২৪ ০০:৫৪:০৭
গোয়াইনঘাট তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ, নিহত ১,আহত ৭ আটক ৪

দূর্গেশ সরকার বাপ্পী,গোয়াইনঘাট থেকে :: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র দু’পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ১জন নিহত ও ৭জন আহত হয়েছেন এবং পুলিশ ৪জনকে আটক করেছে। ৬জুন শনিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার পূর্ব আলীরগাঁও ইউনিয়নের খলাগ্রামে আব্দুল লতিফ ও সায়েদ আহমদ’র মধ্যে এঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মন্নান (২৬), তিনি খলাগ্রামের কুদরত উল্লাহর পুত্র। আহতরা হলেন একই গ্রামের আব্দুল খালিক ৬০), কুদরত উল্লাহ (৫০), সায়েদ (৩৫), শাহাবুদ্দিন (৩০), আলতাফ (৩৫), মাহমুদ (৬০) উল্লেখিত নিহত ও আহতরা হলেন সায়েদ পক্ষের লোকজন। অপর পক্ষে আহত হলেন আব্দুল লতিফ (৬৫)। স্থানীয় ও গ্রামবাসী সুত্রে জানাগেছে শুক্রবার বিকেলে সাযেদ আহমদের একটি ছাগল লতিফ মিয়ার বাড়িতে যায, এতে লতিফ মিয়ার পুত্র আলিম উদ্দিন ছাগলটি ধরে পানিতে ফেলে দেয়।

এবিষয়ে বিকেলে সায়েদ আহমদ, আলিমকে জিজ্ঞেস করলে লতিফ মিয়ার পক্ষের লোকজন উত্তেজিত হয় এবং মারামারির চেষ্টা করে। এসময় উপস্থিত লোকজন বিষয়টি শান্ত করেন।সারারাত গ্রামের সালিশ গন বিচারের আওতায় আনতে চেষ্টা করেন কিন্তু সায়েদ পক্ষ বিচার মানলেও লতিফ পক্ষ বিচার মানেনি। সোমবার ভোরে গ্রামের মুরব্বি ইজ্জত উল্লাহ ও ফখরুল ইসলাম পুনরায় লতিফের বাড়িতে যান বিচার সালিশের জন্য এবং ইজ্জত উল্লাহ তার পকেট থেকে নগদ ৫হাজার টাকা আমানতের জন্য লতিফ মিয়াকে প্রদান করেন। এসময় লতিফ মিয়ার লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে থেকে বের হয়ে সায়েদ পক্ষের লোকজনের উপর হামলা চালায় এতে উভয় পক্ষে ৮জন আহত হন।

আহতদের চিৎকারে গ্রামের লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মান্নান, খালিক ও লতিফকে সিওমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন এবং বাকিদের জৈন্তাপুরে চিকিৎসা দেন। এদিকে বেলা ২ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিওমেক হাসপাতালে মান্নান ইন্তেকাল করেন। এদিকে খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম এসআই কামাল এর নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে প্রেরণ করেন।
এঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪জনকে আটক করে।আটককৃতরা হলেন একই গ্রামের লতিফ মিয়ার পুত্র আব্দুল আলিম, কাবির,নাছির ও নুরুল আমিন। জানতে চাইলে ওসি গোয়াইনঘাট রফিকুল ইসলাম জানান লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিওমেক হাসপাতালে রয়েছে, ৪জনকে আটক করা হয়েছে এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে, এখনও মামলা হয়নি, তবে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন