এশিয়ার প্রাচীনতম বাংলা সংবাদপত্র প্রথম প্রকাশ ১৯৩০

প্রিন্ট রেজি নং- চ ৩২

১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : ‘চিংড়ি’ ঠেকাতে মরিয়া আ.লীগপন্থী প্রার্থীরা

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ২০ মে, সোমবার, ২০২৪ ০৩:০৫:৩৫
নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : ‘চিংড়ি’ ঠেকাতে মরিয়া আ.লীগপন্থী প্রার্থীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা, নবীগঞ্জ ::
দ্বিতীয় ধাপে মঙ্গলবার ভোট অনুষ্ঠিত হবে নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে। এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে স্থানীয় বিএনপির বহিষ্কৃত নেতার বিরুদ্ধে জোর লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে আওয়ামী লীগপন্থী ৫ প্রার্থীর। এমনটাই জানিয়েছেন স্থানীয়রা।  চেয়ারম্যান পদে উপজেলা বিএনপির বহিষ্কৃত সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মজিবুর রহমান চৌধুরী শেফু লড়ছেন চিংড়ি প্রতীক নিয়ে। তার বিরুদ্ধে মূল লড়াইয়ে রয়েছেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল (হেলিকপ্টার), হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম নূরউদ্দিন চৌধুরী বুলবুল (দোয়াত কলম), বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম (ঘোড়া), জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতান মাহমুদ (মোটরসাইকেল) এবং জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন চৌধুরী (আনারস)। এছাড়া আরও দুই প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে লড়বেন। তারা হলেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শাহ আবুল খায়ের (কৈ মাছ) এবং যুক্তরাজ্য প্রবাসী শেখ মোস্তফা কামাল (কাপ পিরিচ)।  স্থানীয় ভোটার এবং রাজনীতিবিদদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মজিবুর রহমান শেফুর মূল লড়াই জমবে আওয়ামীপন্থী ৫ নেতার সঙ্গে। কারণ তারা প্রত্যেকেই স্থানীয় আওয়ামী লীগের হাইভোল্টেজ নেতা। এদের একজন আবার বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। দল থেকে বহিষ্কার করা হলেও স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীদের মাঝে জনপ্রিয়তা এবং সাধারণের মাঝে গ্রহণযোগ্যতার কারণে ক্ষমতাসীন দলের ৫ নেতার বিরুদ্ধে বেশ শক্ত অবস্থানে আছেন শেফু। এছাড়া আওয়ামীপন্থী একাধিক নেতা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগের ভোট ভাগাভাগি হলে সেক্ষেত্রে জয়ের সম্ভাবনা জোরদার হবে শেফুর।  চেয়ারম্যান প্রার্থী মুজিবুর রহমান শেফু বলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তিনি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। তৃণমূলের নেতাকর্মী এবং স্থানীয়দের প্রত্যাশা পূরণেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তিনি। দল তাকে বহিষ্কার করলেও জনগণের কথা মাথায় রেখে ভোটের লড়াইয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তিনি একাই আওয়ামী লীগপন্থী শক্তিশালী ৫ প্রার্থীর বিরুদ্ধে মাঠে রয়েছেন লড়াই করতে। প্রশাসন চাপমুক্ত হয়ে নির্বাচনের মাঠে কাজ করবেন বলে আশা করেন এই নেতা।
এদিকে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্রার্থী একেএম নূর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল বলেন, বর্তমান সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজন করছে, এ ব্যাপারে সন্দেহ নেই। এই উপজেলায় আওয়ামী লীগ-বিএনপি অঘোষিত ভোটযুদ্ধ হবে যা নির্বাচনকে জমজমাট করে তুলবে। দলীয়ভাবে বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলেও তাদের নেতাকর্মীরা মাঠে পুরোদমে কাজ করছে। জনগণ যাকে ভোট দেবে সে-ই নির্বাচিত হবে।
হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জিলুফা সুলতানা জানান, নবীগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সব প্রার্থীর জন্য আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ম অনুসারেই প্রয়োগ করা হবে। নির্বাচন হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ। নির্বাচনে কোনো ধরনের বল প্রয়োগ, বিশৃঙ্খলা, অনিয়ম ও জালিয়াতি বরদাস্ত করা হবে না। কেউ আইন হাতে তুলে নিলে তাকে ছাড় দেওয়া হবে না।
পুলিশ সুপার আক্তার হোসেন জানান, ভোট হবে সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ। কোনো ভোটারকে কেউ কেন্দ্রে আসতে বাধা দিলে তাকে কঠোর হাতে দমন করবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। প্রতিটি কেন্দ্রে প্রার্থী, ভোটার এবং সংশ্লিষ্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সর্বাত্মকভাবে কাজ করবেন তারা।
আগামী মঙ্গলবার ২১ মে নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে এই উপজেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ১৯ জন প্রার্থী। শেষ মুহূর্তের প্রচার কাজ শেষে সবার অপেক্ষা এখন আগামীকালের ভোটের জন্য।
নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ দুই নেতা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় তাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এমন অবস্থায় নিজেদের ইমেজ রক্ষার্থে এবং দলের কাছে গুরুত্ব তুলে ধরতে জয়ের লক্ষ্যে মরিয়া তারা।
চেয়ারম্যান ছাড়াও নবীগঞ্জ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াই হবে জমজমাট। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, বর্তমান নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গতি গোবিন্দ দাশ, পৌর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক (বহিষ্কৃত) আব্দুল আলীম ইয়াছিনী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আলমগীর আহমেদ চৌধুরী সালমান, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা অনর উদ্দিন জাহিদ, জাতীয় পার্টির নেতা মুরাদ আহমদ, কৃষক লীগ নেতা হেলাল চৌধুরী, রুবেল আল মামুন তালুকদার এবং সিদ্দিকুর রহমান চৌধুরী।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন- বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম এবং উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ছইফা রহমান কাকলি।

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন