এশিয়ার প্রাচীনতম বাংলা সংবাদপত্র প্রথম প্রকাশ ১৯৩০

প্রিন্ট রেজি নং- চ ৩২

১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সিলেটে কৃষি ক্ষেত্রে এআইপি সম্মাননা ২০২১ পেলেন ফলচাষী মোঃ সিরাজুল ইসলাম

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ০৭ জুলাই, রবিবার, ২০২৪ ২৩:০৩:৩৫
সিলেটে কৃষি ক্ষেত্রে এআইপি সম্মাননা ২০২১ পেলেন ফলচাষী মোঃ সিরাজুল ইসলাম

যুগভেরী ডেস্ক ::: কৃষি ক্ষেত্রে সিলেট বিভাগ থেকে এক মাত্র এআইপি সম্মাননা ২০২১ পেলেন ফলচাষী ফেঞ্চুগঞ্জের মোঃ সিরাজুল ইসলাম। তিনি ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মাইজগাঁও ইউনিয়নের সিরাজ বহুমুখী খামারের’ স্বত্বাধিকারী এবং একজন কৃষি উদ্বোক্তা। তিনি বানিজ্যিক খামার স্হাপনের মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি ও সহজলভ্যকরন এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে অবদান রাখার জন্য এ এ সম্মাননা লাভ করেন। রোববার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ২০২১ সালের এআইপি সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুস শহীদ এর হাত থেকে এ সম্মাননা গ্রহন করেন।
অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুস শহীদ বলেন, “এআইপিপ্রাপ্ত গুণী ব্যক্তিরা হলেন ‘ক্যাপ্টেন অব দ্য শিপ’। এমন ত্যাগী ব্যক্তিদের অবদানে আমাদের কৃষি এগিয়ে চলেছে। কৃষিকে সামনে এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী সবসময় বাজেটে কৃষিকে প্রাধান্য দিচ্ছেন, ভর্তুকি অব্যাহত রেখেছেন।” কৃষি সচিব ওয়াহিদা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুল রহমান চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শুধু কৃষির তাগিদই দেননি, তিনি নিজেও গণভবনে কৃষিকাজ করেন। আমরা শাইখ সিরাজ সাহেবের অনুষ্ঠানে তা দেখেছি। এই সরকার কৃষিকে প্রাধান্য দিয়েই দেশ পরিচালনা করছে।উল্লেখ্য, কৃষি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২০১৯ সালে কৃষিক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (এআইপি) নীতিমালা প্রণীত হয়েছে। তার আলোকে ২০২০ সাল থেকে দেয়া হচ্ছে এ সম্মাননা। ২০২০ সালে এআইপি পেয়েছিলেন ১৩জন।আর ২০২১ সালে কৃষিখাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় এআইপি (এগ্রিকালচারাল ইম্পর্ট্যান্ট পারসন-এআইপি) সম্মাননা পেয়েছেন ২২ জন।

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন