এশিয়ার প্রাচীনতম বাংলা সংবাদপত্র প্রথম প্রকাশ ১৯৩০

প্রিন্ট রেজি নং- চ ৩২

১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গোয়াইনঘাটে ২৬৫ বস্তা চোরাই চিনিসহ আটক- ১

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ০৫ জুলাই, শুক্রবার, ২০২৪ ২০:৪৪:২৪
গোয়াইনঘাটে ২৬৫ বস্তা চোরাই চিনিসহ আটক- ১

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়াইনঘাট :: সিলেট গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের অভিযানে চিনি বোঝাই ২ টি নৌকা ২৬৫ বস্তা চিনিসহ একজন কে আটক করা হয়েছে। গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলামের নির্দেশে শুক্রবার (৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম নেতৃত্বে একটি আভিযানিক পুলিশ টিম গোয়াইনঘাট উপজেলার ২নং পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের অন্তর্গত উত্তর প্রতাপপুর গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে ২৬৫ বস্তা চিনি, চিনি বহনকারী ২ টি নৌকাসহ আবুল হয়াত নামের এক ব্যক্তিকে আটক করে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আটককৃত আবুল হায়াত (৩০) পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের লুনি হাওর গ্রামের আব্দুল ওয়াহিদের ছেলে। এসময় পলাতক আসামীদের ফেলে যাওয়া ২টি নৌকাসহ ২৬৫ বস্তা ভারতীয় চিনি উদ্ধার পূর্বক আসামী আবুল হায়াতকে নিজ হেফাজতে নেন এসআই জাহাঙ্গীর আলম। উদ্ধারকৃত ভারতীয় চিনির সর্বমোট মুল্য ১৩ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা। গোয়াইনঘাট থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে আটককৃত আবুল হায়াতকে প্রধান আসামি করে এবং ৫ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাতনামা আরো ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাট থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলা নং-০৪, তারিখ-০৫/০৭/২০২৪।

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম পিপিএম বলেন, “সিলেট জেলার পুলিশ সুপারের নির্দেশে গোয়াইনঘাট থানায় অপরাধ দমন, আসামী গ্রেফতার ও থানার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ। তাছাড়া গোয়াইনঘাট থানা এলাকায় সংঘবদ্ধ অপরাধ, ভিকটিম উদ্ধার, মাদক, খুন, ধর্ষণ, চোরাচালান, পরোয়ানাভূক্ত ও চাঞ্চল্যকর মামলার আসামী গ্রেফতারে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে আসছে থানা পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় গোয়াইনঘাট থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম একদল পুলিশ নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের উত্তর প্রতাপপুর গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে ২৬৫ বস্তা চিনি, চিনি বহনকারী ২ টি নৌকাসহ আবুল হয়াত নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেন। আটককৃত আবুল হায়াতের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।”

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন