এশিয়ার প্রাচীনতম বাংলা সংবাদপত্র প্রথম প্রকাশ ১৯৩০

প্রিন্ট রেজি নং- চ ৩২

১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

Daily Jugabheri
প্রকাশিত ২৭ জুন, বৃহস্পতিবার, ২০২৪ ১৫:০৮:১০
সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

যুগভেরী ডেস্ক ::: দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা পর বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন যোগাযোগব্যবস্থা স্বাভাবিক হয়েছে৷ এর আগে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ সিলেটগামী পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের দুইটি বগি লাইনচ্যুত হলে ট্রেন যোগাযোগব্যবস্থা বন্ধহয়ে যায়৷ এতে শিডিউল বিপর্যয় তৈরি হয়৷ সিলেট রেলওয়ে স্টেশনে ভোগান্তিতে প্রায় ১২০০ যাত্রী৷ পরে গত রাতের ট্রেন আজ সকাল সাতটায় ছেড়ে যায়৷ জানা যায়, কুলাউড়া জংশন থেকে উদ্ধারকারী দল গিয়ে লাইনচ্যুত হওয়া ব‌গি দ‌ু‌টি উদ্ধারে কাজ করে। উদ্ধারকাজ শেষে গতকাল দিবাগত রাত তিনটার দিকে সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্বাভা‌বিক হয়। গতকাল রাত ১০টায় সিলেট রেলস্টেশন থেকে উদয়ন এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও তা ছেড়ে গেছে রাত ৩টা ২০ মিনিটে। রাত সাড়ে ১১টার উপবন এক্সপ্রেস ছেড়ে গেছে আজ সকাল সাতটায়। আজ সকাল সোয়া ছয়টায় কালনী এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও এতে বিলম্ব হয়েছে৷
চাকরির পরীক্ষা দিতে রাতের ট্রেনে ঢাকায় যেতে যথাসময়ে স্টেশনে পৌঁছান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী প্রতীক সরকার। ভোগান্তির কথা জানিয়ে তিনি বলেন, চারঘণ্টা ধরে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছি। স্টেশন কর্তৃপক্ষ বলছে, ভোররাত চারটায় লাইন ঠিক হবে৷ কিন্তু ট্রেন আদৌ আসবে কি না তাঁরা এ বিষয়ে কিছুই বলছে না।’ এতে চাকরির পরীক্ষা নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় রয়েছেন প্রতীক সরকার৷ পরে সকাল সাতটার ট্রেনে ঢাকার দিকে গিয়েছেন৷

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ের কারণে অনেক যাত্রী নির্দিষ্ট সময়ে যাত্রা করতে পারেনি। কেউ যাত্রা বাতিল করেছেন, কেউবা বিকল্প যানবাহনে গন্তব্যের দিকে রওনা দিয়েছেন। ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় শিগগিরই ঠিক হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন সিলেট রেলস্টেশনের ব‌্যবস্থাপক নুরুল ইসলাম। সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা পর বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন যোগাযোগব্যবস্থা স্বাভাবিক হয়েছে৷
এর আগে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ সিলেটগামী পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের দুইটি বগি লাইনচ্যুত হলে ট্রেন যোগাযোগব্যবস্থা বন্ধহয়ে যায়৷ এতে শিডিউল বিপর্যয় তৈরি হয়৷ সিলেট রেলওয়ে স্টেশনে ভোগান্তিতে প্রায় ১২০০ যাত্রী৷ পরে গত রাতের ট্রেন আজ সকাল সাতটায় ছেড়ে যায়৷ জানা যায়, কুলাউড়া জংশন থেকে উদ্ধারকারী দল গিয়ে লাইনচ্যুত হওয়া ব‌গি দ‌ু‌টি উদ্ধারে কাজ করে। উদ্ধারকাজ শেষে গতকাল দিবাগত রাত তিনটার দিকে সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্বাভা‌বিক হয়। গতকাল রাত ১০টায় সিলেট রেলস্টেশন থেকে উদয়ন এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও তা ছেড়ে গেছে রাত ৩টা ২০ মিনিটে। রাত সাড়ে ১১টার উপবন এক্সপ্রেস ছেড়ে গেছে আজ সকাল সাতটায়। আজ সকাল সোয়া ছয়টায় কালনী এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও এতে বিলম্ব হয়েছে৷

চাকরির পরীক্ষা দিতে রাতের ট্রেনে ঢাকায় যেতে যথাসময়ে স্টেশনে পৌঁছান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী প্রতীক সরকার। ভোগান্তির কথা জানিয়ে তিনি বলেন, চারঘণ্টা ধরে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছি। স্টেশন কর্তৃপক্ষ বলছে, ভোররাত চারটায় লাইন ঠিক হবে৷ কিন্তু ট্রেন আদৌ আসবে কি না তাঁরা এ বিষয়ে কিছুই বলছে না।’ এতে চাকরির পরীক্ষা নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় রয়েছেন প্রতীক সরকার৷ পরে সকাল সাতটার ট্রেনে ঢাকার দিকে গিয়েছেন৷

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ের কারণে অনেক যাত্রী নির্দিষ্ট সময়ে যাত্রা করতে পারেনি। কেউ যাত্রা বাতিল করেছেন, কেউবা বিকল্প যানবাহনে গন্তব্যের দিকে রওনা দিয়েছেন। ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় শিগগিরই ঠিক হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন সিলেট রেলস্টেশনের ব‌্যবস্থাপক নুরুল ইসলাম।

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন