:: 28-9-2020  
menu
(পরীক্ষামূলক সম্প্রচার)

প্রায় ৭ হাজার গ্রাম এখনও অবিদ্যুতায়িত

ন্যাশনাল ডেস্ক : দেশের ৬ হাজার ৯২৮টি গ্রাম এখনও অবিদ্যুতায়িত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

News image

নসরুল হামিদ জানান, বাংলাদেশ পল­ী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের আওতাধীন ৮৩ হাজার ৮১৯টি গ্রামের মধ্যে ৬২ হাজার ২৪৪টি গ্রাম পূর্ণাঙ্গভাবে ও ১৪ হাজার ৬৪৭টি আংশিকভাবে বিদ্যুতায়ন সম্পন্ন হয়েছে। ২০২১ সাল নাগাদ বিদ্যুতের সিস্টেম লস সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনা হবে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, অবিদ্যুতায়িত ও আংশিকভাবে বিদ্যুতায়িত গ্রামসমূহে বিদ্যুতায়নের লক্ষ্যে চলমান ১৫টি প্রকল্পের মাধ্যমে ৮৪ হাজার কিলোমিটার বিতরণ লাইন নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নের লক্ষ্যে তাৎক্ষণিক, স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করে।

নসরুল হামিদ বলেন, বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকার গ্রাহক সেবা নিশ্চিতকরণে প্রিপেইড মিটার স্থাপনসহ আইসিটি ভিত্তিক সেবা কার্যক্রম চালু করা এবং আগামী ২০২১ সালের মধ্যে সঞ্চালন ও বিতরণ লাইনের ক্ষমতা যথাক্রমে ২১ হাজার সার্কিট কিলোমিটার ও ৪ লাখ ৭০ হাজার কিলোমিটারে উন্নীত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

সংসদ সদস্য এনামুল হকের প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, দেশে বর্তমান বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষমতা ২০ হাজার ১৩৩ মেগাওয়াট। চাহিদা অনুযায়ী গড়ে প্রতিদিন ১১হাজার থেকে ১১হাজার ৬০০ মেগাওয়াট উৎপাদন হচ্ছে। সরকারি খাতে উৎপাদন ক্ষমতা ৮ হাজার ৯৮৬ মেটাওয়াট এবং বেসরকারি উৎপাদন ক্ষমতা ৬ হাজার ৮৯৭ মেগাওয়াট। এ ছাড়া ভারত থেকে ১ হাজার ১৬০ মেটাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করা হচ্ছে।